মোবাইল ফোন রচনা

মোবাইল ফোন রচনা [Mobile Phone Essay in Bengali] [PDF]

banglarachana.com এ আপনাকে স্বাগত জানাই।আপনাদের প্রয়োজনের রচনা আপনাদের কাছে পৌঁছে দেওয়াই আমাদের লক্ষ্য। তাই এখানে নেই এমন প্রয়োজনীয় রচনা পাওয়ার জন্য রচনার নাম আমাদের কমেন্ট করে জানান।আজকের নতুন উপস্থাপন – “মোবাইল ফোন রচনা“।

মোবাইল ফোন রচনা

ভূমিকা:

প্রযুক্তি বিজ্ঞানের নতুন নতুন উপহারে আমাদের জীবন পরিপূর্ণ।বিজ্ঞানের বিস্ময়কর আবিষ্কার আমাদের জীবনের সুখ স্বাচ্ছন্দের পরিধিকে বৃহৎ করেছে।বিজ্ঞানের অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গে নতুন নতুন আবিষ্কার মানব সভ্যতায় আমূল পরিবর্তন এনে দিয়েছে।এই যুগান্তকারী আবিষ্কার গুলির মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় আবিষ্কার মোবাইল ফোন।বর্তমানে মোবাইল ফোন আমাদের জীবনে এক বিশেষ জায়গা দখল করে নিয়েছে।মোবাইল ফোন ছাড়া এখন এক মুহূর্তও অকল্পনীয়।সকলের একাকিত্বকে জয় করে মোবাইল ফোন হয়ে উঠেছে আমাদের নিকট বন্ধু।

মোবাইল ফোনের ইতিহাস:

বিশ্বে এই মুহূর্তে সব থেকে বেশি প্রয়োজনীয় যোগাযোগ মাধ্যমের যন্ত্র মোবাইল ফোনের উদ্ভাবকের মর্যাদা পেয়েছেন মটোরোলার জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী মার্টিন কুপার ও জন ফ্রান্সিস মিচেল।

তাঁরা ১৯৭৩ সালের ৩ ই এপ্রিল প্রথমবার সফলভাবে একটি প্রায় এক কেজি মতো ওজনের হাতে ধরা যায় এমন ফোনের মাধ্যমে কল করতে সক্ষম হন।পরবর্তীতে মোবাইল ফোনের বাণিজ্যিক সংস্করণ প্রথম বাজারে আসে ১৯৮৩ সালে,সেই মোবাইল ফোনটির নাম ছিল “মোটোরোলা ডায়না টিএসি ৮০০০এক্স (DynaTAC 8000x)”।উক্ত মোবাইলটিতে কোনো ডিসপ্লে ছিলনা।এরপর মোবাইল ফোন ঘরে ঘরে ছড়িয়ে পড়তে বেশি সময় লাগেনি। ব্যাবহারকারীদের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে মোবাইল ফোনও আরও অনেক উন্নত হয়েছে।

মোবাইল ফোন ব্যবহারের প্রসার:

বিজ্ঞানের অন্যতম জনপ্রিয় আবিষ্কার মোবাইল ফোন।দিন দিন ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে মোবাইল ব্যাবহারকারীদের সংখ্যা।১৯৯০ সাল থেকে ২০১১ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের সংখ্যা ১২.৪ মিলিয়ন থেকে ক্রমশ বৃদ্ধি পেয়ে ৬ বিলিয়নেরও বেশি হয়ে গেছে।মোবাইল ফোনের ব্যবহার এখন সমাজের সর্বস্তরেই ।উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত সব পরিবারেই  মোবাইল ফোনের ব্যবহার ছড়িয়ে পড়েছে।বিশেষ প্রয়োজনীয় ও আকর্ষণীয় সব সুবিধা নিম্নবিত্তের সামর্থের মূল্যে পাওয়া যায় বলে অধিকাংশ মানুষই মোবাইল ফোন ব্যবহার করে থাকেন।ভবিষ্যতে মোবাইল ফোনের ব্যাবহার আরও বাড়বে বলে আশা করা যায়।

মোবাইল ফোনের ব্যাবহার:

প্রথমে ফোন শুধুমাত্র যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হলেও এখন মোবাইল ফোনের ব্যবহার এখানেই সীমাবদ্ধ নয়।মোবাইল ফোনে উপলব্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা পৃথিবীকে এনে দিয়েছে হাতের মুঠোয়।যোগাযোগের জন্যে ভয়েস কলের পাশাপাশি সরাসরি ভিডিও কলের ব্যাবস্থা উপলব্ধ মোবাইল ফোনে।শপিং,ব্যাঙ্কিং,টিকিট বুকিং,থেকে শুরু করে বিনোদনের গান,চলচ্চিত্র,গেম সবকিছুতেই মোবাইল ফোনের ব্যাবহার।মোবাইল ফোন ছাড়া বর্তমানে একটা মুহূর্ত কল্পনা করা যায়না।

মোবাইল ব্যাবহারের কুফল:

মোবাইল ফোনের ব্যাবহার আমাদের জীবন যাত্রাকে অনেক সহজ ও আরামদায়ক করে দিয়েছে তাতে সন্দেহের অবকাশ নেই।কিন্তু সব কিছুরই ভালো দিকের সাথে সাথে কিছু খারাপ দিকও থাকে।মোবাইল ফোন তার ব্যতিক্রম নয়।বর্তমান যুব সমাজ মোবাইল ফোনের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েছে।সম্প্রতি আমেরিকার এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে একজন কলেজের ছাত্র দিনে ১০ ঘণ্টারও বেশি সময় মোবাইল ফোন ব্যাবহার করে।অতিরিক্ত মোবাইল ফোনের ব্যাবহার ছাত্র সমাজকে বিপথগামী করছে।এছাড়াও মোবাইল ফোনের আতিরিক্ত ব্যাবহার অনেক রকম শারিরীক সমস্যার সৃষ্টি করে।যেমন – দৃষ্টি শক্তির সমস্যা,স্নায়ুর সমস্যা,মানসিক চাপ, বেকপেইন সমস্যা,ঘুমের ব্যাঘাত ইত্যাদি। এ সমস্ত সমস্যা ছাড়াও মোবাইল ইন্টারনেট জগতে অনেক সাইবার ক্রাইম হয়ে থাকে।

উপসংহার:

সবশেষে বলা যায়,মোবাইল ফোনের মতো অন্যতম আধুনিক যন্ত্র ভবিষ্যতে মানুষের জীবনে উপকারে নাকি অপকারে আসবে তা সম্পূর্ণ নির্ভর করে ব্যাবহারকারীদের চিন্তাভাবনার উপর।কিছু খারাপ মানুষ মোবাইল ফোনের অপব্যাবহার করলেও বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যাবহারের ভালো দিকটিও অস্বীকার করা যায় না।তাই আশা করা যায়,পৃথিবীকে হাতের মুঠোয় বন্দি করা মোবাইল ফোনের যুগোপযোগী বিবর্তন বিশ্বকে আরও অনেক উন্নত ও সমৃদ্ধ করবে।


“মোবাইল ফোন” রচনাটি আপনাদের কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আমাদের সাথে যুক্ত থাকার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

আর পড়ুন

Paribesh Dushan o Tar Protikar
বাংলার উৎসব
গাছ আমাদের বন্ধু
বিজ্ঞান ও কুসংস্কার
স্বামী বিবেকানন্দ রচনা

উল্লেখ: https://www.bbc.com/bengali/topics/cz74k98r14wt

Print Friendly, PDF & Email
লেখক পরিচিতি

Rakesh Routh

Facebook

আমি রাকেশ রাউত, পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রাম জেলায় থাকি। মেকানিকাল বিভাগে ডিপ্লোমা করেছি, বাংলায় কন্টেন্ট লেখার কাজ করতে ভালোবাসি।তাই বর্তমানে লেখালেখির সাথে যুক্ত।

এই লেখকের কাছ থেকে আরও পড়ুন

Post টি Share করতে ভুলবেন না

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।