আমার প্রিয় বই রচনা (Amar Priyo Boi Essay in Bengali) [PDF]

banglarachana.com এ আপনাকে স্বাগত জানাই। আমি রাকেশ,আজকের রচনার নাম “আমার প্রিয় বই (Amar Priyo Boi)”।

amar priyo boi

ভূমিকা:

আমি বই পড়তে ভালবাসি।বই পড়া আমার নেশা। শৈশবে আমার মা আমার হাতে ধরিয়ে দিয়েছিলেন রঙিন ছবির বই।আজ আর ছবির বই নয়,নানান রকমের লেখার বই এর সঙ্গে গভীর সম্পর্ক।আমি সিলেবাসের পড়ার বই এর কথা বলছিনা।যে বই প্রয়োজনের অতিরিক্ত মন ও মননকে অভিভূত করে আমি বলছি সেই বই এর কথা।মাঝে মাঝে কিছু ইংরেজির বই পড়লেও আমি বাংলা বই পড়তেই ভালোবাসি।আমার প্রিয় বই এর তালিকায় রয়েছে বেশ কয়েকটি বই,তাদের মধ্যে একটি বেছে নেওয়া সত্যিই খুব কঠিন।কখনো মনে হয় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের “রাজর্ষি”, কখনও মনে হয় বঙ্কিমচন্দ্রের “আনন্দমঠ”, কখনও বা বিভূতিভষণের “আরণ্যক”।এদের মধ্যে আমি প্রিয় বই হিসেবে বিভূতিূষণের “আরন্যক” কেই বেছে নিলাম কারণ আমি এই বইটি যত বার পড়েছি প্রতিবার পেয়েছি নতুনত্বের আস্বাদ।

আরণ্যক উপন্যাসের বৈশিষ্ট্য:

এই উপন্যাসের রচয়িতা বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় কে আমরা সকলেই জানি। তাঁর শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি “পথের পাঁচালী”। প্রকৃতির সাথে মানুষের সম্পর্ক নিয়ে বিভূতিভষণের রচনা গুলি কলজয়ী। এধরনের রচনা গুলির মধ্যে আমাকে সবচেয়ে বেশি অভিভূত করেছে ” আরণ্যক”। “আরণ্যক” কাহিনীর কোনো ধারাবাহিকতা নেই। সমাজের দরিদ্র মানুষের টুকরো টুকরো কাহিনীকে তিনি প্রকৃতির পেক্ষাপটে রূপময় করে তুলেছেন।মানুষ তার লাভের কারণে অরণ্য ময় সুন্দর প্রকৃতিকে ধীরে ধীরে নষ্ট করেছে। কৃষিক্ষেত্র তৈরি হয়েছে।জীবিকার তাগিদে এসেছে কিছু গরীব মানুষ।এদের নিয়েই “আরণ্যক”এর কাহিনী। চরিত্র গুলি কিছু সময়ের জন্য দেখা দিয়ে জনারণ্যে হারিয়ে গেছে।এই উপন্যাসে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় তুলে ধরেছেন গরীব মানুষের সুখ দুঃখের কাহিনি। মানুষকে নিয়ে লেখা এই উপন্যাসের কেন্দ্র বিন্দু কিন্তু অরণ্য।

আরণ্যক এ প্রকৃতি:

বাংলা সাহিত্যে আরণ্যকের কোনো জুড়ি নেই। প্রকৃতির রূপের এমন বর্ণনা আর কোথাও খুঁজে পাওয়া যাবে না।এই উপন্যাসের মধ্যে কোনো প্রথাগত নায়ক নায়িকা নেই।তবে প্রকৃতিকেই নায়িকা হিসেবে ধরে নেওয়া যেতে পারে। লেখক বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় বিহারের এক জঙ্গল মহালে।যার স্থানীয় নাম আজমাবাদ, লবটুলিয়া,ফুলকিয়া, নাড়া বইহার, ইসলামপুর। দিগন্তে মহালিখাহরের পাহাড়। রিজার্ভ ফরেস্টের সীমানা পর্যন্ত এক রহ্যময় আরণ্যক ভূখণ্ড। বিচিত্র লতাপাতা আর বনস্পতির নিবিড় সমাবেশ।এই সুন্দর প্রকৃতিকে ধ্বংস করে জনপদ বসানোর উদ্দেশে লেখকের আগমন।একটু একটু করে প্রকৃতি ধ্বংস হয়েছে।এর সাথেই প্রকাশিত হয়েছে লেখকের বেদনা।

আরণ্যক এ মানুষ:

আরণ্যক বলতে শুধু জনমানব শূন্য বনভূমি নয়, জনতারও সমাবেশ ঘটেছে। জমিদারের লোভ ধ্বংস হচ্ছে বিশাল অরণ্য ভূমি। জনপদ পত্তনের আয়োজন চলেছে জঙ্গলমহলে আর এই আয়োজন পূর্ণ করতে এসেছে বিচিত্র ধরনের সব মানুষ জন। অরণ্যের পটভূমিতে এরা প্রত্যেকেই জীবন্ত হতে উঠেছে।এই সব মানুষ গুলিকে নগর জীবনের পটভূমিকায় তুলে ধরলে তাদের স্বরূপ ঠিক বোঝা যাবেনা।এই মানুষ গুলি হলো ধাওতাল সাহু, ভানুমতি, কুন্তা, মঞ্চী,, ধাতুরিয়া। এছাড়াও উল্লেখযোগ্য মজুরের দল শুধুমাত্র নাম উল্লেখ করে এদের বোঝানো যাবে না,এরা প্রত্যেকেই স্বতন্ত্র সত্তার অধিকারী।

উপসংহার:

বার বার পড়েও পুরোনো হয়নি এই বইটি আমার কাছে।তাই বইটি আমার এত্ত প্রিয়।ভাষা, বর্ণনা ও চরিত্রের উপস্থাপন এতো সুন্দর যে সব মিলিয়ে এক বিস্ম়কর সৃষ্টি।আমাদের পরিচিত ভুবনে আর এক ভুবন। লোবটুলিয়া তার প্রাকৃতিক সম্ভার নিয়ে লুপ্ত হয়ে গেছে পৃথিবী থেকে।হারিয়ে গেছে রাজু পাড়ে,ভানুমতির মতো মানুষেরা।কিন্তু এই উপন্যাস টিতে তারা অনাগত কালের পাঠক পাঠিকার জন্যে চিরজীবী হয়ে আছে।


আশা রাখছি “আমার প্রিয় বই (Amar Priyo Boi)” রচনাটি তোমাদের ভাল লেগেছে। এরম আর রচনা পেতে আমাদের Follow করতে ভুলবে না|

আর পড়ুন

Paribesh Dushan o Tar Protikar
গাছ আমাদের বন্ধু (Gach Amader Bondhu Rachana with PDF)
বাংলার উৎসব

উল্লেখ: https://www.scribd.com/doc/88610366/Amar-Priyo-Boi

Print Friendly, PDF & Email
লেখক পরিচিতি

Rakesh Routh

Facebook

আমি রাকেশ রাউত, পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রাম জেলায় থাকি। মেকানিকাল বিভাগে ডিপ্লোমা করেছি, বাংলায় কন্টেন্ট লেখার কাজ করতে ভালোবাসি।তাই বর্তমানে লেখালেখির সাথে যুক্ত।

এই লেখকের কাছ থেকে আরও পড়ুন

Post টি Share করতে ভুলবেন না

Comments 2

    1. Post
      Author

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।